‘মালদ্বীপ’ কতটা এগিয়ে বুঝল আবাহনী

0
54
  • এএফসি কাপে হার দিয়ে শুরু আবাহনীর
  • মালদ্বীপের নিউ রেডিয়েন্টের কাছে আবাহনী আজ হেরেছে ১-০ গোলে
  • রেডিয়েন্টের পক্ষে একমাত্র গোলটি আলী ফাসিরের
  • ম্যাচে লালকার্ড পেয়েছেন আবাহনীর নাইজেরীয় স্ট্রাইকার সানডে চিজোবা

‌এএফসি কাপে মালদ্বীপের নিউ রেডিয়েন্টের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে তাদের সেরা ফুটবলার আলী আশফাককে নিয়েই ভেবেছে বাংলাদেশের চ্যাম্পিয়ন আবাহনী লিমিটেড। কিন্তু মালদ্বীপের ফুটবল যে এখন আর এক আশফাকে পড়ে নেই, আবাহনী আজ সেটাই বুঝল। তাদের নতুন তারকা আলী ফাসিরের দেওয়া একমাত্র গোলে আবাহনী আজ রেডিয়েন্টের কাছে হেরেছে ১-০ গোলে।
ঢাকায় পা দিয়েই এই ফাসিরের কথা বলেছিলেন আশফাক নিজেই। ম্যাচের ৫৯ মিনিটে দারুণ এক প্লেসিং শটে ফাসির বুঝিয়ে দিয়েছেন কেন আশফাক তাঁর প্রতি চোখ রাখতে বলেছিলেন। উমাইরের থ্রু বক্সের বাম প্রান্তে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে গড়ানো শটে ফাসির যেভাবে দূরের পোস্টে ঠেলে দিলেন, সেটাই তাঁর জাত চেনাতে যথেষ্ট।
আবাহনীর নাইজেরিয়ান স্ট্রাইকার সানডে চিজোবার মিসগুলো বুকে শেল হয়ে বিঁধেছে আবাহনী-সমর্থকদের। দ্বিতীয়ার্ধের ৫৯ মিনিটে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়ার আগে ম্যাচের সবচেয়ে সহজ দুটি সুযোগ মিস করেছেন সানডেই। ২৭ মিনিটে অ্যাটাকিং থার্ডের ওপর থেকে গতি দিয়ে পুরো রক্ষণভাগকে পেছনে ফেলে বক্সে ঢুকে গোলরক্ষক একা পেয়েও গোল করতে পারেননি এই নাইজেরিয়ান। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে রুবেল মিয়ার ক্রস থেকে একেবারে গোলমুখে দাঁড়িয়ে যে হেডটি করলেন সেটি চলে গেল ক্রসবারের ওপর দিয়ে।
এক গোল হজমের পরেও সানডে মাঠে থাকল ম্যাচের ফলটা অন্যরকম হলেও হতে পারত। দশজন নিয়েও ম্যাচে পুরোপুরিই ছিল আবাহনী। বল দখলের লড়াইয়ে ছিল সমতা ।
যে আশফাককে নিয়ে ভয় ছিল, সে আশফাক কিন্তু ছিলেন নিষ্প্রভ। সেটি আবাহনীর রক্ষণের কারণেই। রীতিমতো বোতলবন্দী ছিলেন তিনি। বোঝা যাচ্ছিল আশফাককে কতটা ‘পড়ে’ মাঠে দল নামিয়েছিলেন কোচ সাইফুল বারী টিটু। আবাহনী অধিনায়ক ও গোলরক্ষক সোহেলও খেলেছেন দুর্দান্ত। কয়েকটি ভালো সেভ করেছেন তিনি। কিন্তু হার আর এড়াতে পারলেন না।
ঘরোয়া ফুটবলে বাঘ হলেও আবাহনীর এএফসি অধ্যায়টা একেবারেই শ্রী হীন। প্রিমিয়ার লিগের দশ আসরের ছয়টিতেই চ্যাম্পিয়ন তারা। কিন্তু ঐতিহ্যবাহী দলটি আন্তর্জাতিক ফুটবল পা দিলেই ব্যর্থ। তৃতীয় সারির টুর্নামেন্ট এএফসি প্রেসিডেন্ট কাপে পাঁচবার খেলে একবারও গ্রুপ পর্ব পেরোতে পারেনি তারা। গত মৌসুমে এএফসি কাপে নিজেদের গ্রুপের চার দলের মধ্যে আবাহনী ছিল চতুর্থ স্থানে। এবার ‘ই’ গ্রুপে নিউ রেডিয়েন্ট ছাড়া আবাহনীর সঙ্গী ভারতের আই-লিগ চ্যাম্পিয়ন আইজল এফসি ও বর্তমানে ইন্ডিয়ান সুপার লিগের (আইএসএল) দল বেঙ্গালুরু এফসি। এবারও শুরুটা হলো হার দিয়ে।

আবাহনীর হয়ে যারা যারা খেলেছেন:
গোলরক্ষক: সোহেল
রক্ষণভাগ:ওয়ালি, নাসিরউদ্দিন, সাদ, এলিসন
মধ্যমাঠ: ফাহাদ, সেইয়া কোজিমা, সোহেল
আক্রমণভাগ: সানডে, এমেকা ও রুবেল